ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

এন্টারটেনমেন্ট

00310
0057
0057
0057
0057
তনুশ্রীর যৌন হেনস্থায় সমর্থনে প্রশ্ন মুখে টুইঙ্কেল খান্না

মুম্বাই ২৯ সেপ্টেম্বর (এ.এন.ই ): শ্যুটিং সেটে যৌন হেনস্থা নিয়ে নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন প্রাক্তন অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। নানার বিরুদ্ধে শ্যুটিং সেটে শ্লীলতাহানির অভিযোগ এনেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, শ্যুটিং সেটে কোরিওগ্রাফার গণেশ আচারিয়া, পরিচালক রাকেশ সরণ, প্রযোজক সামি সিদ্দিকি সহ আরও অনেকেই পুরো ঘটনার সাক্ষী ছিলেন বলে জানিয়েছেন তনুশ্রী। এমনকি নানা পাটেকর গুণ্ডা পাঠিয়ে তাঁরা গাড়িতে ভাঙচুরও চালিয়েছিলেন বলেও অভিযোগ আনেন। তনুশ্রীর এই অভিযোগে তাঁর সমর্থনে মুখ খুলেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, সোনম কাপুর, ফারহান আখতার, টুইঙ্কেল খান্না সহ আরও অনেকেই। তবে এই সমর্থনের মধ্যেও কারোর কারোর সমর্থন নিয়েই প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন তনুশ্রী দত্ত। তনুশ্রীর যৌন হেনস্থার ঘটনায় তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, পরিণীতি চোপড়া, সোনম কাপুর, ফারহান আখতার, রিচা চাড্ডা, স্বরা ভাস্কর টুইঙ্কেল খান্নার মতো ব্যক্তিত্ব। সকলের সমর্থন পেয়ে তনুশ্রী খুশি ঠিকই, তবে তনুশ্রীর কথায় শুধুই সমর্থন করে বা মুখ খুলে এধরনের অপরাধ আটকানো যায় না। এগুলি বন্ধ করতে নানা পাটেকরের মতো অভিনেতার সঙ্গে কাজ করা বন্ধ করতে হবে। মুখে এধরনের কাজের বিরোধিতা করে পরে আবার সেই অভিনেতার সঙ্গেই কাজ করতে চলে গেলেন এধরনের সমর্থনের কোনও ভিত্তি নেই। এপ্রসঙ্গে তনুশ্রী দত্ত সরাসরি অক্ষয় ঘরণী টুইঙ্কেল খান্নার নাম করেই তোপ দেগেছেন। তনুশ্রীর কথায়, ''টুইঙ্কেল ম্যাম আমায় সমর্থন করেছেন তার জন্য ধন্যবাদ। তবে আপনার স্বামী অক্ষয় কুমার খুব শীঘ্রই সেই নানা পাটেকরের সঙ্গেই শ্যুটিং শুরু করতে চলেছেন সেটা নিয়ে কী বলবেন? তাই এটাও একটা প্রশ্ন যাঁরা সমর্থন করছেন তাঁদের সমর্থন কতটা প্রকৃত, তাতে কোনও ভাঁওতা নেই তো? তাই এধরনের সমর্থনেরও কোনও যুক্তি নেই। যদি এধরনের লোকজনকে আটকাতেই না পারা গেল তাহলে আর কী হল? '' প্রসঙ্গত, তনুশ্রীর যৌন হেনস্থার অভিযোগ প্রসঙ্গে টুইট করে অক্ষয় পত্নী টুইঙ্কেল লিখেছিলেন, '' দয়া করে তনুশ্রীর সমালোচনা না করে আমাদের উচিত মহিলাদের জন্য তাঁদের জন্য কাজর সঠিক পরিবেশ তৈরি করা, যেখানে তাঁর সুস্থ ভাবে নিজের অধিকারে কাজ করতে পারবে। আমার মনে হয় এধরনের সাহসি মহিলাদের কথা শোনা উচিত, তবেই আমরা মহিলারা আমাদের লক্ষ্যে পৌঁছতে পারব। '' শুধু অক্ষয় কুমার নন, যে রজনীকান্ত মহিলাদের ক্ষমতায়নের জন্য কাজ করছেন তিনিও নানা পাটেকরের মতো লোকের সঙ্গে কাজ করে চলেছেন বলেও অভিযোগ করেন তনুশ্রী। তবে তনুশ্রীর এই পাল্টা আক্রণের মুখে পড়ে টুইঙ্কেল খান্না অবশ্য কোনও মন্তব্য করেননি। এবিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে শোনা যায়নি অক্ষয় কুমারকেও।


Copyright © 2012 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.