• কৈলসহরে বন্যা পরিস্থিতি উন্নতি, মনু নদীর জল বিপদ সীমার নিচে
  • স্বাভাবিক ছন্দে ফিরেছে কৈলাসহরে জনজীবন
  • বন্যার জল নামছে, ঘরে ফিরছেন শরণার্থীরা
  • বাড়ির পুকুরে এক ব্যাক্তির মৃতদেহ উদ্ধার
  • বন্যার কারণে সাময়িক বাতিল করা হয়েছে ত্রিপুরা-আসামের সব ট্রেন
  • মেলাঘর থানার পুলিশের হাতে ২টি শিশু সহ ধৃত ২টি শিশু পাচারকারী
  • রাজ্যে চালু হল ত্রিপুরা পুলিশের মোবাইল ভ্যান পরিষেবা
  • চতুর্থদিনেও কৈলাসহরে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত
  • রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি উন্নতি, ফিরছে নিজ ঘরে শরনার্থীরা
  • দক্ষিণ রাজনগরের মাছ মাফিয়া গ্রেপ্তার, তিন দিনের জেল
  • বিলোনিয়ায় ভয়াবহ যান দুর্ঘটনায় মৃত্যু ৩, আহত ১৬
  • ছাত্রের উপর মানসিক ও শারীরিক অত্যাচারের অভিযোগে শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা
  • রেল ট্র্যাকে ধস পরায় রেল চলাচল বন্ধ
  • ধর্মনগরে প্রচুর নেশা সামগ্রী উদ্ধার
  • আইজিএম হাসপাতাল সংলগ্ন ড্রেন থেকে নবজাতক শিশু উদ্ধার
  • কর্তব্যপালনে চরম গাফিলতি, বরখাস্ত দুই এসডিএম
  • জলস্ফীতি নতুন করে বেশ কিছু জেলায়
  • দুর্নীতি আড়াল করতে পঞ্চায়েতে আগুন
  • খোয়াই থেকে তিন নাজেরিয়ান নাগরিক আটক
  • কুমারঘাট এবং কৈলাসহরে বন্যা পরিস্থিতি সামাল দিতে ১০ আধিকারিক নিযুক্ত
  • আগরতলা ভগবানঠাকুর চৌমুহনী এলাকায় এক পথ দূর্টনায় আহত ১
  • আজ পবিত্র ঈদ-উল-ফেতর
  • উনকোটি জেলা পরিদর্শনে প্রশাসনিক কাজে অসুন্তুস্ট মুখ্যমন্ত্রী
  • ভারপ্রাপ্ত রাজ্যপালের দায়িত্ব পালনে শপথ নিলেন কেশরী নাথ ত্রিপাঠী
  • নিজের কন্যাকে ধর্ষণ করলো এক পাষণ্ড পিতা

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

ত্রিপুরা খবর

00310
0057
0057
0057
0057
রাত পোহালেই পৌষ সংক্রান্তি, চলছে ঘরে ঘরে প্রস্তুতি

আগরতলা, ১৩ই জানুয়ারি (এ.এন.ই ): কথায় বলে বাঙ্গালীদের বারো মাসে তেরো পার্বণ। রাত পোহালেই বাঙালীদের আরেকটি পার্বণ পৌষ সংক্রান্তি। একে 

আবার মকর সংক্রান্তিও বলা হয়ে থাকে। তা নিয়ে প্রতিটি ঘরে চলছে উৎসবের ব্যস্ততা। এই পার্বণ ত্রিপুরা সহ পশ্চিমবাংলা। বাংলাদেশ, আসাম রাজ্যের বরাক 

ভ্যালিতে ধুমধামের সঙ্গে পালন করা হয়ে থাকে। মূলত এই সংক্রান্তিতে হরেকরকম পিঠেপুলি, পায়েস তৈরি করা হয়। তবে এই উৎসবের অন্যতম আরো দুটি 

খাবার আছে সে গুলি হলো বাতাসা ও তিলুয়া। কিন্তু বর্তমানে যুগে নানান মিষ্টি জাতীয় খাবারের ভিড়ে তিলুয়া ও বাতাসের কদর প্রায় নেই বললেই চলে। 

এদিনে গৃহস্থের ঘরে বিশেষ এক উন্মাদনা লক্ষ্য করা যায়। বিশেষ করে গ্রামাঞ্চলে এখনো ধান কেটে নেওয়া জমির মধ্যে বুড়ির ঘর বানিয়ে আগুন জ্বালিয়ে 

আনন্দ করার বিষয়টি চোখে পরে।  তাছাড়া এদিনে তীর্থমুখে চলে পুণ্যস্নান, অবগাহন, তর্পণ, অস্থি বিসর্জন, শ্রাদ্ধ ইত্যাদি। এক সময় তীর্থমুখ উপজাতিদের 

তীর্থ স্নান হিসাবে পরিচিত হলেও বর্তমানে তীর্থমুখ জাতি উপজাতি উভয় অংশের মিলন স্থল হয়ে উঠেছে। ধর্মপ্রাণ মানুষেরা তীর্থ বা পুণ্য কার্যাদি করলেও 

বেশিরভাগ ধর্মপ্রাণ মানুষই মকর সংক্রান্তির পুণ্য লগ্নটির জন্য অপেক্ষা করে থাকেন। এদিনে হার কাঁপানো ঠাণ্ডা কে উপেক্ষা করেই অগণিত পুণার্থী 

গোমতীর জলে পুণ্যস্নান করেন। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় থেকে পুণার্থীরা তীর্থক্ষেত্রে সমবেত হন। জানা গেছে, ইতিমধ্যে দূর দূরান্ত থেকে আগত পুর্নার্থীরা দল 

বেঁধে তীর্থ মুখে পৌঁছে গেছেন। পাশাপাশি তীর্থমুখে পৌঁছে গেছেন বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা সাধু, সন্ত এবং সন্ন্যাসীরা। সংক্রান্তি কেন্দ্র করে তীর্থমুখে দুই ধরে 

মেলাও হয়। এই মেলা কে কেন্দ্র করে রাজ্যের দুর দূরান্ত থেকে ব্যবসায়ীরা তারা তাদের পসরা নিয়ে সেখানে উপস্থিত হন। এই উৎসবে এখন শুধুমাত্র 

বাঙালিরাই নয় জাতি উপজাতি সকলই এখন এই সংক্রান্তির আনন্দে মেতে উঠেন।    


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.