• কৈলসহরে বন্যা পরিস্থিতি উন্নতি, মনু নদীর জল বিপদ সীমার নিচে
  • স্বাভাবিক ছন্দে ফিরেছে কৈলাসহরে জনজীবন
  • বন্যার জল নামছে, ঘরে ফিরছেন শরণার্থীরা
  • বাড়ির পুকুরে এক ব্যাক্তির মৃতদেহ উদ্ধার
  • বন্যার কারণে সাময়িক বাতিল করা হয়েছে ত্রিপুরা-আসামের সব ট্রেন
  • মেলাঘর থানার পুলিশের হাতে ২টি শিশু সহ ধৃত ২টি শিশু পাচারকারী
  • রাজ্যে চালু হল ত্রিপুরা পুলিশের মোবাইল ভ্যান পরিষেবা
  • চতুর্থদিনেও কৈলাসহরে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত
  • রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি উন্নতি, ফিরছে নিজ ঘরে শরনার্থীরা
  • দক্ষিণ রাজনগরের মাছ মাফিয়া গ্রেপ্তার, তিন দিনের জেল
  • বিলোনিয়ায় ভয়াবহ যান দুর্ঘটনায় মৃত্যু ৩, আহত ১৬
  • ছাত্রের উপর মানসিক ও শারীরিক অত্যাচারের অভিযোগে শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা
  • রেল ট্র্যাকে ধস পরায় রেল চলাচল বন্ধ
  • ধর্মনগরে প্রচুর নেশা সামগ্রী উদ্ধার
  • আইজিএম হাসপাতাল সংলগ্ন ড্রেন থেকে নবজাতক শিশু উদ্ধার
  • কর্তব্যপালনে চরম গাফিলতি, বরখাস্ত দুই এসডিএম
  • জলস্ফীতি নতুন করে বেশ কিছু জেলায়
  • দুর্নীতি আড়াল করতে পঞ্চায়েতে আগুন
  • খোয়াই থেকে তিন নাজেরিয়ান নাগরিক আটক
  • কুমারঘাট এবং কৈলাসহরে বন্যা পরিস্থিতি সামাল দিতে ১০ আধিকারিক নিযুক্ত
  • আগরতলা ভগবানঠাকুর চৌমুহনী এলাকায় এক পথ দূর্টনায় আহত ১
  • আজ পবিত্র ঈদ-উল-ফেতর
  • উনকোটি জেলা পরিদর্শনে প্রশাসনিক কাজে অসুন্তুস্ট মুখ্যমন্ত্রী
  • ভারপ্রাপ্ত রাজ্যপালের দায়িত্ব পালনে শপথ নিলেন কেশরী নাথ ত্রিপাঠী
  • নিজের কন্যাকে ধর্ষণ করলো এক পাষণ্ড পিতা

ইক্সক্লোসিভ ভিডিও

ঘরেই বানিয়ে নিন লাইটিং লেন্টার্ন

ত্বকের উজ্বলতার জন্য ২০টি টিপস

ডেনমার্কে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের প্রথম লম্বা ডিম! দেখুন কীভাবে লম্বা ডিম পাড়ে মুরগী

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

বিজ্ঞাপণ ব্যানার

টপ ফাইভ

মেলাঘর থানার পুলিশের হাতে ২টি শিশু সহ ধৃত ২টি শিশু পাচারকারী

আগরতলা ১৭ জুন (এ.এন.ই): রবিবার সকালে মেলাঘর থেকে দুই শিশু সহ দুই শিশু পাচারকারী ধৃত। এই দুই শিশু পাচারকারীকে আটক করেছে মেলাঘর থানা পুলিশ। ধৃতদেরকে থানায় নিয়ে এসেছে মেলাঘর থানার পুলিশ। জানা গেছে, রবিবার সকালে মেলাঘরে দুটি শিশু সহ দুটি শিশু পাচারকারীকে সন্দেহজনকভাবে ঘোরা ফেরা করতে দেখে স্থানীয় লোক জন মেলাঘর থানার পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ছুটে আসে মেলাঘর থানার পুলিশ। এরপর ঐ দুই শিশুপাচারকারিদের জিজ্ঞেসাবাদ করে পুলিশ। কিন্তু তাদের কথার মধ্যে অসঙ্গতিপূর্ণ থাকায় পুলিশের সন্দেহ হয় তারা শিশু পাচার করার উদ্দেশ্যে তারা এসেছে। পাশাপাশি পুলিশের এও সন্দেহ হয় যে বহিঃরাজ্যে পাচারের উদ্দেশ্যে শিশুদের আনা হয়েছে। যদিও এবিষয়ে পুলিশ এখনো সঠিক সিদ্ধান্তে আসেনি। সন্দেহ হওয়াতে পুলিশ সেই দুই শিশু পাচারকারীকে থানায় নিয়ে আসে এবং তাদেরকে জিজ্ঞেসাবাদ চালাচ্ছে পুলিশ আর বিশেষ কোন তথ্য পাওয়া যায় কিনা।

17-06-2018 01:12:05 pm

কর্তব্যপালনে চরম গাফিলতি, বরখাস্ত দুই এসডিএম

আগরতলা ১৬ জুন (এ.এন.ই ): রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতির খোজ খবর নিতে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় পরিদর্শনে যান মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। বন্যা কবলিত এলাকা গুলিতে গিয়ে পিরিত জনসাধারণের সাথে কথা বলেন তিনি। এছাড়া শরণার্থী শিবির গুলি পরিদর্শনে যান। খোজ খবর নেন খাওয়া দাওয়ার ব্যপারে। মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব রাজ্যের বিভিন্ন বন্যা কবলিত এলাকা গুলি বিশেষ করে সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত কুমারঘাট এবং কৈলাসহরে শরণার্থী শিবিরে আশ্রিত লোকজনদের সাথে কথা বলেন এবং তাদের সমস্যা গুলি শোনেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিকে বন্যায় রাজ্যে সব থেকে ক্ষতিগ্রস্ত কুমারঘাট এবং কৈলাসহরের বন্যার্থ মানুষেরা অভিযোগ করেন কৈলাসহর ও কুমারঘাটের মহকুমাশাসকদ্বয়ের বিরুদ্ধে। অভিযোগ শুনে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব এই দুই মহাশাসককে দায়িত্বপালনে চরম গাফিলতির অভিযোগে সঙ্গে সঙ্গে সাময়িক বরখাস্তের নির্দেশ দেন। মুখ্যমন্ত্রী বলেন এই ধরনের কাজে গাফিলতি বরদাস্ত করা হবে না। পাশাপাশি কড়া হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন যদি আরকেই তারা তাদের কাজে গাফিলতি করে তাদেরকেও বরখাস্ত করা হবে। পাশাপাশি তিনি বন্যার্থ মানুষদের আশ্বস্ত করেন সরকার তাদের পাশে আছে এবং তাদেরকে সব ধরনের সাহায্য দেওয়া হবে।

16-06-2018 03:10:09 pm

জলস্ফীতি নতুন করে বেশ কিছু জেলায়

আগরতলা ১৬ জুন (এ.এন.ই ): এখনো বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি। রাজ্যে বিভিন্ন জেলায় নতুন করে জল বৃদ্ধি পাওয়ায় গ্রামবাসীদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। তবে উনকোটি, গোমতী, ধলাই এবং দক্ষিণ জেলার বন্যা পরিস্থিতি খানিকটা হলেও উন্নতি হয়েছে। জানা গেছে, সেই সময় জেলায় জল নামতে শুরু করেছে। নদীর জল ও ধীরে ধীরে নামছে। তবে খোয়াই এবং পশ্চিম জেলায় নতুন করে বন্যা জনিত পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ায় সেখানে জনগণের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। জানা গেছে, বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টির দৌলতে খোয়াইয়ের বেশ কিছু জায়গায় পুনরায় জলমগ্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবারের বৃষ্টির কারণে খোয়াই মহকুমার গনকি, জাম্বুরা, সোনাতলা, লালছরা, সিঙ্গিছরা সহ বিস্তীর্ণ এলাকা জলপ্লাবিত হয়ে গেছে। এদিকে খোয়াই থেকে তেলিয়ামুড়া যাওয়ার সরকে জল জমে যাওয়ায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। প্রশাসনসূত্রে জানা গেছে, খোয়াই শহরের বিভিন্ন জায়গায় ১০ শরণার্থী শিবির খোলা হয়েছে। গোটা জেলায় ৪৭টি শরণার্থী শিবির খোলা হয়েছে। আর এই শিবির গুলিতে ১২ হাজারেরও উপর শরণার্থী আশ্রয় নিয়েছেন। অপরদিকে রাজ্যের অন্যান্য জেলা গুলিতে বন্যা পরিস্থিতি একই রয়েছে। যদিও অনেক জেলাতে জল কমতে শুরু করেছে। তবে সামগ্রিক ভাবে দেখতে রাজ্যে বন্যার ফলে ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে। প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে। বন্যায় এখন পর্যন্ত বিশেষ করে উনকোটি জেলায় ৬০ হাজারেরও বেশি ;মানুষ বিপন্ন হয়ে পরেছেন। প্রায় ১৪ হাজার পরিবার রয়েছে ত্রাণ শিবিরে। সারা রাজ্যে মোট ২২৪ টি শিবির খোলা হয়েছে। বন্যায় রাজ্যে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে রেলপথ, সড়কপথ। পাহারে রেল ধস পরার কারণে আগরতলা থেকে বর্হিরাজ্যের সাথে যোগাযোগকারী এক্সপ্রেস ট্রেনগুলি বাতিল করা হয়েছে। যার দরুন সমস্যার সন্মুখিন হতে হয়েছে যাত্রীদের। এদিকে বন্যায় আক্রান্ত দুর্গতদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে বায়ুসেনা। বায়ুসেনার কপ্টারে করে দুর্গতদের খাবার পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া পরিস্থিতি মোকাবিলায় ঝাঁপিয়েছে আসাম রাইফেলস, বিএসএফ, টিএসআর এবং এনডিআরএফ টিম। এনডিআরএফের মোট ৩১ টিম উদ্ধারকাজে নিযুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া টিএসআর, বিএসএফ এবং আসাম রাইফেলসের জওয়ানদেরও এই উদ্ধার কাজে নিযুক্ত করা হয়েছে।

16-06-2018 02:37:28 pm

দুর্নীতি আড়াল করতে পঞ্চায়েতে আগুন

আগরতলা ১৬ জুন (এ.এন.ই ): ত্রিপুরায় বাম শাসনে পঞ্চায়েত দুর্নীতির আখড়া ছিল বলে অভিযোগ। আর নতুন সরকার আসার পর দুর্নীতির তথ্য বেরিয়ে আসার আতঙ্কে ত্রাহি ত্রাহি রব উঠেছে পঞ্চায়েত স্তরে। যাবতীয় নথিপত্র নষ্ট করে দেওয়ার চেষ্টা চলছে বেশ কিছু দিন ধরে। নথিপত্র গায়েব করার চেষ্টার অঙ্গ হিসাবে উদয়পুর মহকুমার ঘিরাই বাগমা পঞ্চায়েত অফিসে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার গভীর রাতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় পঞ্চায়েত কার্যালয়ে। খবর পেয়ে শনিবার ভোরে অগ্নিনির্বাপক দপ্তরের কর্মীরা ছুটে আসে ঘটনাস্থলে। কিন্তু ততক্ষণে সব সুহাহ হয়ে গেছে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পঞ্চায়েত কার্যালয়ে আনুমানিক রাত পৌনে ৩টা নাগাদ আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। অগ্নিকান্ডের ঘটনাটি নাশকতামূলক এবং উদ্দেশ্য প্রণোদিত বলে মনে করা হচ্ছে। ঘটনার খবর পাওয়ার পর পঞ্চায়েত কার্যালয়ের সামনে দমকল বাহিনী কর্মীদের আসতে প্রায় ভোর ৪ টা হয়ে যায়। এই সময়কালের মধ্যে পঞ্চায়েত কার্যালয়টি ভস্মীভূত হয়ে গেছে। ভেতরে কোন কাগজপত্র আর নেই। সব শেষ হয়ে গেছে। পুলিশ জানিয়েছে, ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু হয়েছে। সংশ্লিষ্ট থানা এবং অগ্নিনির্বাপক দপ্তর পৃথক ভাবে ঘটনার তদন্ত করছে। তবে প্রাথমিক তদন্তে নাশকতার বিষয়টি স্পষ্ট হয়ে গেছে।

16-06-2018 02:03:37 pm

উনকোটি জেলা পরিদর্শনে প্রশাসনিক কাজে অসুন্তুস্ট মুখ্যমন্ত্রী

আগরতলা ১৫ জুন (এ.এন.ই ): শুক্রবারও রাজ্যে ভয়াবহ বন্যার কবলে রয়েছে। এখনো রাজ্যে বিভিন্ন জায়গা জলমগ্ন হয়ে আছে। বিশেষ করে কৈলাসহরে, খোয়াই, ধলাই, উনকোটি, দক্ষিণ ত্রিপুরা জেলা। প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, এখনো পর্যন্ত রাজ্যে ১৮৯টি শরণার্থী শিবির খোলা হয়েছে। এই শিবির গুলিতে ১৮ হাজারেরও বেশী পরিবার আশ্রয় নিয়েছে। এদিকে বন্যায় ৩ জন মারা গেছে। এখনো রাজ্যে প্রায় সব কয়টি নদীর জল বিপদ সীমার উপর দিয়ে বইছে। কিছু কিছু জায়গায় 'জল বাড়ছে। তবে কিছু কিছু জায়গায় জল ধীরে ধীরে কমছে। মঙ্গলবার থেকে শুরু হওয়া প্রবল বৃষ্টির দরুন সব থেকে ক্ষতি হয়েছে কৈলাসহরে। এছারা বন্যায় কৃষি ক্ষেত্রে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতি হয়েছে বহু ধানের জমি। রাজ্যের ইতিহাসে এতবড় বন্যা কবে এসেছিল তা অনেকেই মনে করতে পারছেন না। একমাত্র সিপাহীজলা জেলা ছাড়া বাকি সাতটি জেলাই এবারের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। জানা গেছে বন্যায় সব থেকে বেশি ক্ষতি হয়েছে উনকোটি, উত্তর দক্ষিণ জেলা। এদিকে বন্যা পরিস্থিতি দেখতে শুক্রবার সকালে উনকোটি জেলায় পরিদর্শনে যান মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। সেখানে গিয়ে তিনি প্রশাসনিক কাজে অসুন্তুস্ট প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। তিনি বলেন বন্যায় দুর্গতদের সাহায্যে যারা প্রশাসনিক কাজে দায়িত্বে আছেন তাদের 'কাজে তিনি মোটেও খুশি নন। প্রশাসনিক কাজে যারা দায়িত্বে আছেন তাদেরকে বলেন তারা যেন দায়িত্ব সহকারে নিজের কাজ পালন করে। উনকোটিতে গিয়ে তিনি সমগ্র এলাকা পরিদর্শন করেন। এবং যারা বাড়ি ঘর ছেরে শরণার্থী শিবিরে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন তাদের 'সাথে কথা বলেন। এবং তাদের সাথে খিচুড়ি খান মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব।

15-06-2018 05:05:36 pm

ভারপ্রাপ্ত রাজ্যপালের দায়িত্ব পালনে শপথ নিলেন কেশরী নাথ ত্রিপাঠী

আগরতলা ১৫ জুন (এ.এন.ই ): ভারপ্রাপ্ত রাজ্যপালের দায়িত্ব পালনে শুক্রবার সকাল ১০ টায় রাজভবনের হলঘরে শপথ গ্রহণ করলেন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল কেশরী নাথ ত্রিপাঠী। বৃহস্পতিবারই তিনি রাজ্যে এসেছেন। শুক্রবারে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব, উপমুখ্যমন্ত্রী যিষ্ণু দেববর্মণ সহ মন্ত্রীসভার সদস্যরা। উল্লেখ্য ত্রিপুরার রাজ্যপাল তথাগত রায় কিছুদিনের ছুটিতে যাচ্ছেন। ওই সময়ে ত্রিপুরার রাজ্যপাল হিসাবে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করবেন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল কেশরী নাথ ত্রিপাঠী। এদিকে বৃহস্পতিবারই রাজ্যপাল কেশরী নাথ ত্রিপাঠী রাজ্যে এসেছেন। বিমানবন্দর থেকে রাজভবনে আসার পর তাকে স্বাগত জানান মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব সহ মন্ত্রীসভার অন্যান্য সদস্যরা। রাজভবনে রাজ্যপাল ত্রিপাঠীকে গার্ড অফ অনারও দেওয়া হয়।

15-06-2018 02:44:44 pm

ভারপ্রাপ্ত রাজ্যপালের দায়িত্ব পালনে শপথ নিলেন কেশরী নাথ ত্রিপাঠী

আগরতলা ১৫ জুন (এ.এন.ই ): ভারপ্রাপ্ত রাজ্যপালের দায়িত্ব পালনে শুক্রবার সকাল ১০ টায় রাজভবনের হলঘরে শপথ গ্রহণ করলেন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল কেশরী নাথ ত্রিপাঠী। বৃহস্পতিবারই তিনি রাজ্যে এসেছেন। শুক্রবারে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব, উপমুখ্যমন্ত্রী যিষ্ণু দেববর্মণ সহ মন্ত্রীসভার সদস্যরা। উল্লেখ্য ত্রিপুরার রাজ্যপাল তথাগত রায় কিছুদিনের ছুটিতে যাচ্ছেন। ওই সময়ে ত্রিপুরার রাজ্যপাল হিসাবে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করবেন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল কেশরী নাথ ত্রিপাঠী। এদিকে বৃহস্পতিবারই রাজ্যপাল কেশরী নাথ ত্রিপাঠী রাজ্যে এসেছেন। বিমানবন্দর থেকে রাজভবনে আসার পর তাকে স্বাগত জানান মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব সহ মন্ত্রীসভার অন্যান্য সদস্যরা। রাজভবনে রাজ্যপাল ত্রিপাঠীকে গার্ড অফ অনারও দেওয়া হয়।

15-06-2018 02:44:43 pm

অবৈধ ব্যবসার সুযোগ দিতে সরকারকে চাপ দেওয়ার চেষ্টা

আগরতলা ১৪ জুন (এ.এন.ই ): অনৈতিক কার্যকলাপ, অবৈধ ব্যবসার উপর কড়া পদক্ষেপ নিতে গিয়ে রাজ্যের বিজেপি পরিচালিত এনডিএ সরকারের যথেষ্ট সমস্যার সন্মুখিন হতে হচ্ছে। অবৈধ ব্যবসার সঙ্গে যুক্তরা প্রকাশ্যে এসে সরকারী সিদ্ধান্তে প্রতিবাদ করতে শুরু করেছে। যদিও এতে সরকারের পক্ষে ইতিবাচক প্রভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে। ত্রিপুরায় বামফ্রন্ট সরকারের অবসানের পর তিন মাস বয়সী বিজেপি পরিচালিত এনডিএ সরকার অবৈধ ব্যবসা বাণিজ্য বিভিন্ন ধরনের অনৈতিক কার্যকলাপের উপর কঠোর মনোভাব নিয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে। শুধু তাই নয় অনেক ক্ষেত্রে আইনের সংশোধনও করতে চলেছে বর্তমান সরকার। অবৈধ কার্যকলাপের বিরুদ্ধে আইনের কঠোর প্রয়োগ লক্ষ্য করা যাচ্ছে। রাজ্য সরকার পরিবেশ রক্ষায় অবৈধ ভাবে নদী থেকে বালি তোলা নিষিদ্ধ করে দিয়েছে। এবস্থায় বন ও পরিবেশ দপ্তর আইনের সংশোধনী করতে চলেছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বন ও পরিবেশ দপ্তর নদী থেকে বালি তোলা নিষিদ্ধ করে দিয়েছে। আর এই অবস্থায় পূর্বের ন্যায় বালি তোলার সুযোগ দেওয়ার দাবিতে পথ অবরোধ করে অবৈধ ব্যবসায়ীরা। তবে যোগেন্দ্রনগরের সকাল থেকে শুরু করা এই পথ অবরোধ বেশিক্ষণ চালিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়নি। স্থানীয় জনগণ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে এবং পথে নেমে পথ অবরোধকারীদের উঠে যাওয়ার জন্য চাপ দেয়। ফলে কিছুক্ষণের মধ্যে উত্তপ্ত হয়ে উঠে সমগ্র এলাকা। অবৈধ ব্যবসার সুযোগ দেওয়ার দাবিতে পথ অবরোধকারীরাও পাল্টা জবাব দেয়। দীর্ঘক্ষণ ধরে সংঘর্ষ চলতে থাকে। পরে থানায় খবর পৌছয়। বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে ছুটে আসে। এবং সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে এলাকাবাসীর চাপে অবৈধ ব্যবসার সুযোগ দেওয়ার দাবিতে আন্দোলনকারীদের অবরোধ প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

14-06-2018 05:17:05 pm

রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি মোকাবেলায় নামানো হচ্ছে সেনা

আগরতলা ১৪ জুন (এ.এন.ই ): ত্রিপুরার বন্যা পরিস্থিতি উদ্বেগ জনক আকার ধারণ করেছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে অচিরেই সেনা নামানো হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে কথা বলেছেন। উদ্ভূত পরিস্থিতি সম্পর্কে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংকে বন্যায় দুর্গতদের উদ্ধারের জন্য এবং সামগ্রিক ভাবে পরিস্থিতির মোকাবেলা করতে সেনা নামানোর দাবি জানিয়েছেন। এরপর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেশের সেনা প্রধানের সঙ্গে কথা বলেছেন বলে জানা গেছে। রাজ্যের মুখ্যসচিব কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিবের সঙ্গেও কথা বলেছেন। উদ্ধারকার্যে বৃহস্পতিবার থেকে সেনা নামানো হতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

14-06-2018 12:36:25 pm

সমগ্র ত্রিপুরা আবারো বন্যার কবলে, উদ্বেগজনক পরিস্থিতি

আগরতলা ১৩ জুন (এ.এন.ই ): ভারি বর্ষণ ও ঝরো হাওয়ার কবলে পরেছে সমগ্র রাজ্য। রাজ্যের বহু এলাকা জলমগ্ন হয়ে আছে। বহু নতুন এলাকায় নদীর জল ঢুকে পরেছে। মঙ্গলবার রাত থেকে শুরু হওয়া ভারি বর্ষণে প্রভাব স্পষ্ট পরিলক্ষিত হচ্ছে বুধবার সকাল থেকে।। পাহাড়ি এলাকায় হওয়া বৃষ্টির জল নদীতে চলে এলে নদীর পার্শবর্তী বহু এলাকা জলমগ্ন হয়ে পরেছে। নদীর উপচে পরা জলে প্লাবিত হয়েছে রাজ্যের সবকয়টি নদীর তীরবর্তী এলাকা। বহু নতুন এলাকা জলমগ্ন হয়ে পরেছে। অপেক্ষাকৃত উঁচু এলাকাগুলিতেও নদীর জল ঢুকে গেছে। সমগ্র রাজ্যে উদ্বেগ জনক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। এখন পর্যন্ত ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন ২ জন। রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় শরণার্থী শিবির খোলা হয়েছে। গোটা রাজ্যের পরিস্থিতি বিবেচনা করে রাজ্য প্রশাসন যুদ্ধ কালীন তৎপরতায় ত্রাণকার্য্য নেমেছে। জানা গেছে ফেনীর জলস্তর বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে। বন্যার তাণ্ডবে মহকুমার বৈষবপুর, সাব্রুম শহর, দৌলবাড়ি, ছোটখিল, মনুঘাট, শ্যামসিং এলাকায় বহু পরিবার ত্রাণ শিবিরে আশ্রয় নিয়েছে। বৃষ্টির দরুন আসাম-আগরতলা জাতীয় সরকে জায়গায় জায়গায় ধস পরে বন্ধ হয়ে আছে রাস্তা। জানা গেছে, জেলা সদরের বুকে টিলা ভূমির ধসে চাপা পরে গুরুতর আহত এক মহিলা। সংকটজনক অবস্থায় ঐ মহিলাকে কুলাই জেলা হাসপাতাল থেকে জিবি হাসপাতালে রেফার করা হয়। অন্যদিকে বর্ষণের জেরে তেলিয়ামুরা মহকুমার বিভিন্ন এলাকায় মাটি ধসে জনজীবন একেবারে বিপর্যস্ত হয়ে পরেছে। যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে আছে। তেলিয়ামুরা থেকে আমবাসা পর্যন্ত কয়েক শতাধিক যানবাহন রাস্তায় আটকে পরেছে। এইদিকে আসাম-আগরতলা জাতীয় সড়ক পুনরায় স্বাভাবিক করে তোলার লক্ষে প্রশাসন যুদ্ধ কালীন তৎপরতায় কাজ শুরু করেছে।

13-06-2018 01:40:49 pm

পাল্টে যাচ্ছে কৃষি দপ্তরের নাম, নতুন চিন্তার প্রতিফলন

আগরতলা ১২ জুন (এ.এন.ই ): পালটে যাচ্ছে ত্রিপুরার কৃষি দপ্তরের নাম। এখন থেকে এই দপ্তরের নাম হবে কৃষি ও কৃষক কল্যাণ দপ্তর। মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব দক্ষিণ জেলার বীরচন্দ্র মনুতে ভ্যাজিটেবল এক্সিলেন্স সেন্টারের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছেন। এই অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী স্থানীয় চাষিদের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা করেন। সঙ্গে ছিলেন রাজ্যের কৃষি মন্ত্রী প্রানজিৎ সিংহ রায় সহ আধিকারিকদের একটি দল। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করেছেন, আগামী ২০২২ সালের মধ্যে কৃষকদের আয় দিগুণ করতে হবে। কৃষকরা যাতে তাদের উৎপাদিত সামগ্রীর ন্যায্যমূল্য পায়। এবং সব ধরনের ঝুঁকি থেকে তাদে মুক্ত করার লক্ষ্যে বেশ কিছু পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। যদিও এক্ষেত্রে ত্রিপুরা অনেকটাই পিছিয়ে আছে। ত্রিপুরার কৃষকরা নরেন্দ্র মোদীর সরকারের ঘোষিত কর্মসূচি গুলির সুফল এখনো পায়নি। কারণ ইতিপূর্বে রাজ্য সরকার প্রকল্প গুলির অধিকাংশই বাস্তবায়ন করেনি। তিনি বলেন, সমস্ত কৃষকদের ফসল বিমা যোজনায় আওতায় আনতে হবে। রাজ্য [সরকার রাজ্যের সমস্ত কৃষকদের এই 'ধরনের একটি লাভ দায়ক কেন্দ্রীয় প্রকল্পের সমস্ত কৃষকদের নিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এই উদ্দেশ্যে ইতিমধ্যেই সারা রাজ্যে ব্যাপক সচেতনতা কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় সরকারের মত ত্রিপুরা সরকারও আগামী ২০২২ সালের মধ্যে রাজ্যের সমস্ত কৃষকদের আয় দিগুণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এলক্ষ্যে কাজ চলছে। আশা করা যায় এই বিষয়ে অবশ্যই সুফল আসবে। তিনি বলেন, রাজ্য সরকারের উদ্দেশ্যের সঙ্গে তাল মিলিয়ে রাজ্য কৃষি দপ্তরের নাম বদলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ত্রিপুরা সরকার। এখন থেকে কৃষি দপ্তরের নামা হবে কৃষি ও কৃষক কল্যাণ দপ্তর। কৃষকদের বাদ দিয়ে কৃষির উন্নতি সম্ভব নয়। ফলে দপ্তরের নামেই বিষয়টির উল্লেখ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এদিকে দপ্তরের নাম বদলের সিদ্ধান্ত নিয়ে ইতিমধ্যেই তৎপরতা শুরু হয়েছে। জানা গেছে, ভূমি ও উদ্যান দপ্তরকেও কৃষি ও কৃষক কল্যাণ দপ্তরের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

12-06-2018 05:56:40 pm

মঙ্গলবার প্রকাশিত হল মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল

আগরতলা ১২ জুন (এ.এন.ই ): ত্রিপুরা মধ্যশিক্ষা পর্ষদ পরিচালিত এবছরের মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল আজ প্রকাশিত হল। মঙ্গলবার সকালে মাধ্যমিকের ফল ঘোষণা করে পর্ষদ। জানা গেছে, মঙ্গলবার সকাল ৯টায় মাধ্যমিকের পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়। ফল ঘোষণার পূর্বে পর্ষদ জানিয়েছে, এবছর রেগুলার সহ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছে প্রায় ৫০ হাজার ছাত্রছাত্রী সভাপতি মিহির কান্তি দেব জানিয়েছেন। তিনি আরো জানান, এবারের মাধ্যমিক পরীক্ষায় প্রথম হয়েছে আকাশদীপ দে প্রাপ্ত নম্বর ৪৮৬ (নেতাজি সুভাষ বিদ্যানিকেতন), দ্বিতীয় দেবকী দেবনাথ প্রাপ্ত নম্বর ৪৮০ (উদয়পুর ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল), মহঃ আশিক আলম প্রাপ্ত নম্বর ৪৮০ (উদয়পুর ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল), আবির দেবনাথ প্রাপ্ত নম্বর ৪৮০ (বিলোনিয়া গভঃ ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল), দীপজয় রুদ্র শর্মা প্রাপ্ত নম্বর ৪৮০ (বিবেকানন্দ শিশু নিকেতন), শুভজিৎ চক্রবর্তী প্রাপ্ত নম্বর ৪৮০ (শিক্ষা নিকেতন), তৃতীয় সৌরভ চক্রবর্তী প্রাপ্ত নম্বর ৪৭৮ (উদয়পুর ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল), চতুর্থ শ্রেয়া সাহা প্রাপ্ত নম্বর ৪৭৭, পঞ্চম অঙ্কিতা দেবনাথ প্রাপ্ত নম্বর ৪৭৫, রুচিন সরকার প্রাপ্ত নম্বর ৪৭৫ ( আর্য কলোনী স্কুল), সায়নিক সূত্রধর প্রাপ্ত নম্বর ৪৭৫ (বিলোনিয়া গভঃ ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল), ষষ্ট অনুস্কা সাহা 'প্রাপ্ত নম্বর ৪৭৪ (উদয়পুর ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল), সৌগত দেবনাথ প্রাপ্ত নম্বর ৪৭৪ (হেনরি ডিরোজিও স্কুল), সপ্তম স্বর্ণদ্বীপা মজুমদার প্রাপ্ত নম্বর ৪৭৪ (উদয়পুর ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল), অষ্টম শুভ্রজিত দেব প্রাপ্ত নম্বর ৪৭২ (নেতাজি সুভাষ বিদ্যানিকেতন), নবম অনুপম দত্ত প্রাপ্ত নম্বর ৪৭১ (বিলোনিয়া গভঃ ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল), অঙ্কিতা বৈদ্য প্রাপ্ত নম্বর ৪৭১ (বৃস্তক শিক্ষা নিকেতন), রীতাভাস দেবনাথ প্রাপ্ত নম্বর ৪৭১ (উমাকান্ত একাডেমি ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল), দশম অদিতি সেন প্রাপ্ত নম্বর ৪৭০ (উদয়পুর ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল), অঙ্কন দেব প্রাপ্ত নম্বর ৪৭০ (মোহনপুর এইচ এস স্কুল), নিকিতা প্রাপ্ত নম্বর ৪৭০ (নেতাজি সুভাষ বিদ্যানিকেতন), বর্নীতা সূত্রধর প্রাপ্ত নম্বর ৪৭০ (শিশুবিহার এইচ এস স্কুল)। এদিকে ত্রিপুরা মধ্যশিক্ষা পরিচালিত মাধ্যমিকের ফলাফল ঘোষণার পর উদয়পুরে ছুটে গেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। তিনি উদয়পুর ইংলিশ মিডিয়াম ইস্কুলের ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক ও কর্মচারীদের সঙ্গে কথা বলেন। ঘোষিত মাধ্যমিকের ফলাফল অনুযায়ী উদয়পুর ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল থেকে ৮ জন প্রথম দশের তালিকায় উঠে এসেছে। শুধু তাই নয় বিদ্যালয়ের ১০০ শতাংশ পরীক্ষার্থী কৃতকার্য্য হয়েছে। এই ফলাফলে আপ্লুত মুখ্যমন্ত্রী তড়িঘড়ি উদয়পুর ছুটে গেছেন। উদয়পুরেই মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের বাল্যকাল কেটেছে। ফলে বিলম্ব না করে তিনি ঐ স্কুলে ছুটে যান। আর তাকে পাশে পেয়ে শিক্ষক শিক্ষিকা ছাত্রছাত্রী এবং অভিভাবকরা আরো বেশি উৎফুল্ল হয়ে উঠে।

12-06-2018 03:10:40 pm

শিক্ষা ও মেধা নিয়ে নতুন চিন্তা ভাবনায় ত্রিপুরার বিজেপি সরকার

আগরতলা ১২ জুন (এ.এন.ই ): ত্রিপুরা মধ্যশিক্ষা পরিচালিত মাধ্যমিকের ফলাফল ঘোষণার পর উদয়পুরে ছুটে গেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। তিনি উদয়পুর ইংলিশ মিডিয়াম ইস্কুলের ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক ও কর্মচারীদের সঙ্গে কথা বলেন। ঘোষিত মাধ্যমিকের ফলাফল অনুযায়ী উদয়পুর ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল থেকে ৮ জন প্রথম দশের তালিকায় উঠে এসেছে। শুধু তাই নয় বিদ্যালয়ের ১০০ শতাংশ পরীক্ষার্থী কৃতকার্য্য হয়েছে। এই ফলাফলে আপ্লুত মুখ্যমন্ত্রী তড়িঘড়ি উদয়পুর ছুটে গেছেন। উদয়পুরেই মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের বাল্যকাল কেটেছে। ফলে বিলম্ব না করে তিনি ঐ স্কুলে ছুটে যান। আর তাকে পাশে পেয়ে শিক্ষক শিক্ষিকা ছাত্রছাত্রী এবং অভিভাবকরা আরো বেশি উৎফুল্ল হয়ে উঠে। মুখ্যমন্ত্রী বিদ্যালয়ে গিয়ে কৃতিদের সঙ্গে কথা বলেন। ছাত্র শিক্ষক, অভিভাবক সকলের সঙ্গে মত বিনিময় করেন। বিদ্যালয়ের পরিকাঠামো গুলি খতিয়ে দেখে দ্রুত সমস্যার নিষ্পত্তির আশ্বাস দেন। পরে বিদ্যালয় থেকে বেরিয়ে স্থানীয় সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ৯৮ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে সকলেই ভালভাবে পাশ করেছে। আর সেই সঙ্গে ৮ জন মেধা তালিকায় চলে আসা যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ। কৃতিরা ছাড়াও তাদের মা বাবা, পরিবার পরিজন এবং সর্বোপরি বিদ্যালয় শিক্ষক শিক্ষিকাদের অসামান্য কৃতিত্ব রয়েছে। বাল্যকাল এই জায়গায় কেটেছে। ফলে আবেগ ধরে রাখতে না পেরে এখানে ছুটে আসা। তিনি আরো বলেন, রাজ্য সরকার কেন্দ্রীয় নীতি মেনে নতুন শিক্ষানীতি চালু করেছে। আর এই শিক্ষানীতির রাজ্যের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে এক নতুন উন্নত দিশায় নিয়ে যাবে। রাজ্যের প্রগতির জন্য মেধাবীদের তাদের উৎকর্ষ বিকাশে উপযুক্ত বাতাবরণও তৈরি করতে হবে। তিনি আরো বলেন, রাজ্যের মেধাবীরা বহিঃরাজ্যে চলে গেছেন। এমনকি বিশ্বের উন্নত দেশে তারা রয়েছে। এখন সময় এসেছে তাদের এই রাজ্যে পুনরায় নিয়ে আসার। তাদের মাধ্যমে এরাজ্যের উন্নয়ন প্রগতি আরো তরান্বিত হওয়া সম্ভব। রাজ্য সরকার এবিষয়ে অতিসত্বর একটি আপিল রাখবে বলে উল্লেখ করেন।

12-06-2018 02:16:18 pm

কেন্দ্রীয় সরকারের সাফল্য নিয়ে বিজেপি জনসম্পর্ক অভিযান ত্রিপুরায়

আগরতলা ১১ জুন (এ.এন.ই ): প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দুর্নীতি মুক্ত, দারিদ্র মুক্ত ভারত গঠনের লক্ষকে সামনে রেখেই ত্রিপুরা সরকার কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এখন কেন্দ্রীয় সরকারের কর্মসূচি গুলি সম্পর্কে জনসচেতন বৃদ্ধি করতে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই প্রদেশ বিজেপির জনসম্পর্ক অভিযান কর্মসূচি অঙ্গ হিসাবে রাজ্য ব্যাপী জনসম্পর্ক অভিযান শুরু হতে চলেছে। বিজেপি নেতা তথা রাজ্যের শিক্ষা ও আইন মন্ত্রী রতন লাল নাথ আগরতলা কার্যালয়ে আহুত এক সাংবাদিক সম্মেলনে কর্মসূচির বিস্তারিত ব্যাখ্যা দিয়ে বলেন দেশের ইতিপূর্বে একমন কোন সরকার আসেনি কিংবা প্রধানমন্ত্রী হননি। যারা এতটা জনমুখি স্বচ্ছ রাজনৈতিক পরিকল্পনা নিয়ে দৃঢ়তার সঙ্গে কাজ করে গেছেন। রাজ্যের মানুষকে এই সব বিষয়ে জানান দেওয়া বিশেষ প্রয়োজন হয়ে পরেছে। তাই রাজ্যব্যাপী জনসম্পর্ক অভিযান চলছে। জনসম্পর্ক অভিযানে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব মন্ত্রীসভার সমস্ত সদস্য, বিধায়করা দায়িত্ব প্রাপ্ত সমস্ত নেতারা জনসম্পর্ক অভিযানে যোগ দিচ্ছেন। তিনি বলেন, কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকারের ৪ বছর পূর্তি উপলক্ষে সারা রাজ্যে ২৬২ টি স্বচ্ছ ভারত অভিযান ৬,২২০ টি বুদ্ধিজীবী সম্মেলন, ১৬,০৬৬টি গ্রামসভা এবং ১০০০ বেশি বিশিষ্ট ব্যক্তি বর্গের সঙ্গে মত বিনিময় হয়েছে। এছাড়া কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পে সুবিধা ভোগীর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। সারা রাজ্যে বাইক র‍্যালি হয়েছে। এতে যোগ দিয়েছেন ১৭,৯২৯ টি। রতন লাল নাথ বলেন, মেইক ইন ইন্ডিয়া , স্টার্ট আপ ইন্ডিয়া কর্মসূচির প্রত্যক্ষ প্রতিফলন ত্রিপুরাতেও ঘটেছে। মুদ্রা লোণের মাধ্যমে ৪ লক্ষ ৩০৮ জন ঋণ পেয়েছেন। স্কিল ডেভোলাপমেন্ট এর প্রকল্পের মাধ্যমে রাজ্যের ১ লক্ষ ৪০ হাজার ৬০৪ জনকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। এর মধ্যে ১৩ ৫৬৫ জনকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। সে সঙ্গে তাদের কর্মসংস্থান ও সুনিশ্চিত করা হয়েছে। স্মার্ট সিটি প্রকল্পে আগরতলা সহ ৯৯৯ কোটি টাকা পেয়েছে। গত ৪ বছরে রাজ্যের রেল যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি হয়েছে। ব্রড গেজ সহ একাধিক দ্রুত গামী ট্রেন পাওয়া গেছে। সুকন্যা স্মৃতি যোজনায় রাজ্যের ২২,৭৪৭ জন একাউন্ট খুলেছেন। এতে ২৫ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা জমা পরেছে। কৃষি বিমা যোজনায় সবে মাত্র ত্রিপুরায় কাজ শুরু হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ব্যপক 'প্রচার চালানো হচ্ছে। ইতিপুর্বে ত্রিপুরা সরকার সম্পূর্ণভাবে এই প্রকল্পটি কৃষক কোন সুবিধা পায়নি। বর্তমান সরকার এবিষয়ে কৃষকদের সচেতন করে তোলার কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। শুধু তাই নয় প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা থেকে শুরু করে প্রায় প্রতিটি প্রকল্পেই পূর্বতন সরকার বিস্তর অনিয়ম করেছে। কিন্তু বর্তমান ত্রিপুরা সরকার কেন্দ্রীয় সরকারের রীতি মেনে স্বচ্ছতা বজায় রেখে কাজা 'শুরু করেছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

11-06-2018 06:43:55 pm

আগামী ১৮ জুন রাজ্যে আসছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ

আগরতলা ১১ জুন (এ.এন.ই ): আগামী ১৮ জুন রাজ্যে আসছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি 'অমিত শাহ। জানা গেছে, রাজ্যে বিজেপি-আইপিএফটি জোট সরকারের কার্যকলাপের ১০০ দিন পূর্তি উপলক্ষ্যে বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ রাজ্যে আসছেন। এদিন তার সাথে রাজ্যে আসছেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক রামমাধব, উত্তর পূর্বাঞ্চলের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অজয় জাম্বল, নেডা চেয়ারম্যান তথা আসামের অর্থমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা। বিজেপি সাধারণ সম্পাদিকা প্রতিমা ভৌমিক বিজেপি প্রদেশ কার্যালয়ে আহুত এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি জানিয়েছেন, আগামী ১৬ জুন রাজ্য সরকারের কার্যকালের ১০০ দিন পূর্ণ হবে সেই উপলক্ষে আগামী ১৮ জুন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ রাজ্যে আসছেন। তিনি আরো জানান, সেদিন রাজধানীর এনএসআরসিসি হলে একটি সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। সমাবেশ শুরু হবে বিকাল ৪.৩০ সময়। তিনি বলেন সমাবেশে মোদী সরকারের চার বছর পূর্তি উপলক্ষে কেন্দ্র সরকারের গৃহীত কর্মসূচিগুলি নিয়ে কথা বলবেন বিজেপির শির্ষনেতৃত্বরা। বিজেপি সাধারণ সম্পাদিকা প্রতিমা ভৌমিকা বলেন, এ মূর্হুতে মুখ্যমন্ত্রী থেকে শুরু দলের সব শীর্ষ নেতৃত্ব জন সংযোগ কর্মসূচিতে ব্যস্ত রয়েছেন।

11-06-2018 04:39:12 pm

আগামী ৬ জুলাই থেকে যাত্রা শুরু হচ্ছে আগরতলা-দেওঘর এক্সপ্রেসের

আগরতলা ১১ জুন (এ.এন.ই ): আগামী ৬ জুলাই থেকে যাত্রা শুরু হচ্ছে আগরতলা-দেওঘর এক্সপ্রেস। রবিবার পুর নিগমের মেয়র ডঃ প্রফুল্ল জিৎ সিনহার বাড়িতে জনসম্পর্ক অভিযানে গিয়ে এক প্রশ্ননের উত্তরে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব এই 'কথা জানান। তিনি বলেন, বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকার উত্তর পূর্বাঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। তিনি রেলের মানচিত্রে ত্রিপুরার নাম অগ্রগণ্য। বর্তমানে আগরতলা থেকে চলছে রাজধানী এক্সপ্রেস, চালু করা ত্রিপুরা সুন্দরি এক্সপ্রেস, তাছাড়া চালু করা হয়েছে আগরতলা-হাবিবগঞ্জ বিশেষ এক্সপ্রেস ট্রেন। এইদিকে বর্তমানে 'হামসফর সপ্তাহে চার দিন চলাচল করছে আগরতলা-হাওড়া-ব্যাঙ্গালুরুর মধ্যে। এছাড়া কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস আগরতলা-শিহালদাহ মধ্যে চলছে সপ্তাহে চারদিন। মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব বলেন, আগরতলা-দেওঘরের মধ্যে এক্সপ্রেস ট্রেন চালানোর দাবি উঠেছিল বহুবার। তিনি বলেন বহুবার রেলমন্ত্রকের কাছে আগরতলা-দেওঘরের মধ্যে এক্সপ্রেস ট্রেন চালানোর দাবি জানানো হয়েছিল। অবশেষে তা পূরণ হতে চলেছে। আগামী ৬ জুলাই আগরতলা-দেওঘরের মধ্যে এক্সপ্রেসের যাত্রা শুরু। এইদিকে সীমান্ত রেলওয়ে ;সূত্রে জানা গেছে, আগরতলা-দেওঘরের মধ্য ১৫৬২৬ ডাউন এবং দেওঘর-আগরতলা মধ্যে ১৫৬২৫ আপ নম্বরের ট্রেন চালানো হবে। তিনি জানান, সপ্তাহে একদিন রাত ১০ নাগাদ আগরতলা স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করবে। এই এক্সপ্রেস ট্রেন ১৪৬২ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করবে।

11-06-2018 03:31:34 pm

লেফুঙ্গা ব্লক নিয়ে আবার জোট শরিকের মধ্যে অস্থিরতা

আগরতলা ১১ জুন (এ.এন.ই ): ব্লক উন্নয়ন কমিটির চেয়ারম্যান বদলের দাবিতে আবার উত্তপ্ত হয়ে উঠল মোহনপুর। চেয়ারম্যান বদলের দাবিতে বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকারের সহযোগী আইপিএফটি পথ অবরোধ করে দিয়েছে। সমগ্র এলাকায় তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে। সকাল থেকেই সিমনা থেকে খোয়াইগামী বিকল্প জাতীয় সড়ক অবরোধ করে দিয়েছে আইপিএফটি। বেলা বারার সঙ্গে সঙ্গে আইপিএফটি কর্মীদের সংখ্যাও বৃদ্ধি পেতে থাকে। ফলে সমগ্র এলাকায় তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে। আইপিএফটি কর্মী সমর্থকরা উত্তেজনা শ্লোগান দিচ্ছে। বিজেপি'র বিরুদ্ধে দেওয়া এই শ্লোগানের প্রত্যক্ষ প্রভাবও পরতে শুরু করেছে । জানা গেছে, লেফুঙ্গা ব্লকের উন্নয়ন কমিটির চেয়ারম্যান পদে একজন স্থানীয় বিজেপি নেতাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। কিন্তু রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্ত মানতে নারাজ আইপিএফটি। ফলে দীর্ঘ দিন ধরেই এই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। ইতিপূর্বে বল্ক কার্যালয়ে তালাও ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু সোমবার বিকল্প জাতীয় সড়ক অবরুদ্ধ করে দেওয়ায় উত্তেজনা আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। পথ অবরোধ মুক্ত করার জন্য চেস্টা চলছে। প্রয়োজনীয় সুরক্ষা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। অন্যদিকে আইপিএফটি কর্মীদের যে কোন ধরনের সম্ভাব্য কার্যকলাপ রুখতে বিজেপি স্থানীয় কর্মী সমর্থকরাও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছে বলে জানা গেছে।

11-06-2018 03:02:08 pm


Copyright © 2017 আগরতলা নিউজ এক্সপ্রেস. All Rights Reserved.